সম্পাদকীয়

প্রিয় আবরার, তোমার জন্য বুকের ভেতর কষ্ট থাকলে থাকুক। তোমার নৃসংশ হত্যাকাণ্ডের বিচার চাওয়া বা প্রতিবাদ করার সাহস বা সামর্থ্য কোনটিই আমার বা আমাদের কারো নেই। আমি বা আমরা অথবা পিতা বা অভিভাবকেরা আজ বড় অসহায়। তাই হত্যাকারীদের ফাঁসি চেয়ে কি হবে? তাতে কি তোমার নিথর দেহে আর প্রাণ ফিরে আসবে? হত্যাকারীদের ফাঁসি হলেই কি সন্তান হারানোর ক্ষত, ভাই হারানোর কষ্ট, বন্ধু হারানোর কষ্ট মুছে যাবে? বুকের গভীরে যে দগদগে ক্ষত, যা আজীবন বয়ে বেড়াতে হবে তার কি কোন উপসম কখনো হবে?

প্রিয় আবরার, আমাদেরকে ক্ষমা করে দিও। তোমার থেতলে যাওয়া লাশের দিকে শুকনো চোখে তাকিয়ে থাকা ছাড়া আমাদের যে আর কোন কিছুই করার নেই। নিরব দীর্ঘশ্বাস হায়েনাদের কখনোই থামাতে পারে না, অনেক অতীতই তার সাক্ষী হয়ে আছে। অনেক দেখেছি, আরো অনেক দেখতে হবে হয়তো !

প্রিয় আবরার, তোমার জন্য আল্লাহর কাছে মাগফেরাত কামনা করছি। পরপারে তুমি ভালো থেকো।